করোনা ভাইরাসের কারনে সামনের দিনগুলো অনেক কঠিন হয়ে যাবে। পুরো বিশ্ব ইতিমধ্যেই চরম এক অর্থনৈতিক সংকটে পড়ে গেছে। চাকরি হারাচ্ছে অনেকেই। বন্ধ হয়ে যাচ্ছে অনেক ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান। অনেকেই সব হারিয়ে পথে বসেছে। বাংলাদেশেও এর প্রভাব বেশ ভালোভাবেই পড়ছে। পোষাক শিল্প সহ অনেক বড় বড় শিল্প এখন হুমকির মুখে। সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে ক্ষুদ্র শিল্প এবং নতুন উদ্যোক্তারা। এরকম এক পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে নিজের জীবিকা উপার্যন টিকিয়ে রাখতে অনেকেই অনেক ভাবে চেষ্টা করবে। কেউ অনলাইন বিজনেস করবে, কেউ চাকরি হারিয়ে এলাকায় মুদির দোকান খুলে বসবে, কেউ বড় ব্যবসায় লস খেয়ে আবারো ছোটো খাটো কোনো ব্যবসা দিয়ে শুরু করবে, এমনকি কেউ একটি প্রতিষ্ঠানে যে পদে চাকরি করতো সে চাকরি হারিয়ে প্রতিষ্ঠানে গিয়ে তার চেয়ে নিচের পদেও চাকরি করতে পারে। এরকম অনেক কিছুই হতে পারে আমাদের সাথে সামনের দিন গুলোতে। রেস্টুরেন্ট, ট্রাভেল ট্যুরিজম, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট বিজনেস একেবারেই অন্ধকার দেখছে এই মূহুর্তে।

এ করোনায় আমরা অনেকেই অনেক ফাউন্ডেশনে ডোনেট করেছি, মানুষকে সাহায্য করেছি। অনেকেই তাদের দুঃখ বুঝতে পেরেছি। কিন্তু সাহায্যটা শুধু টাকা পয়সা ডোনেটের মাধ্যমেই হয়না। অনেক মাধ্যমেই সাহায্য করা যায়। আমাদের সবচাইতে বড় সমস্যা হচ্ছে কিছু হলেই আমরা ছিঃ ছিঃ করি, যে কোনো পেশাকেই ছোটো করে দেখি, কেউ কিছু করার বা ছোটো খাটো একটা ব্যবসার উদ্যোগ নিলেও আড়ালে হাসাহাসি করি। সবার আগে এসব বন্ধ করতে হবে। এসব বন্ধ করাও কিন্তু অন্যকে সাহায্যের সমান। আমাদের আশে পাশে যারা চাকরি হারিয়েছে যাদের সামার্থ্য আছে তাদের একজন বেকারকে চাকরি দিয়ে সাহায্য করতে হবে, আমাদের বন্ধু, বা পরিবার পরিজনের কেউ অনলাইন বিজনেস শুরু করেছে তার বিজনেস থেকে প্রডাক্ট কিনে তাকে সাপোর্ট করতে হবে। কোনো বন্ধু নতুন এক রেস্টুরেন্ট দিয়েছে সেখান থেকে খাবার কিনে তাকে সাপোর্ট করতে হবে। কেউ আগে প্রাইভেট কার বিক্রি করতো সে যদি এখন রিকশা, ইজি বাইক বিক্রি করে সেটা দেখে হাসাহাসি করা যাবেনা। আমাদের কোনো বন্ধু গ্রামে গিয়ে কৃষি কাজ শুরু করলে কোনোভাবেই তাকে ছোটো করে দেখা যাবেনা অবশ্যই মনে রাখতে হবে আমরা সবাই এখন পরিস্থিতির শিকার। এরকম অবস্থায় আমাদের যতটা সম্ভব সাপোর্ট করতে হবে। সাপোর্ট যেনো করুনা না হয়ে যায় সেটাও খেয়াল রাখতে হবে। তাহলেই আমরা আগের অবস্থায় ফিরে যেতে পারবো। শুধু মাত্র ভ্যাকসিন আবিষ্কারই আমাদের সব ক্ষতি পুষিয়ে দিতে পারবেনা।